মোঃ আবদুল্যাহ রানা, নোয়াখালী প্রতিনিধি ঃ- বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষন বিশ্ব প্রামাণ্য হিসেবে ইউনেস্কো কর্তৃক স¦ীকৃতি পাওয়ায় সারাদেশের ন্যায় আজ নোয়াখালীতেও বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক মাহবুবুল আলম তালুকদার বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে শোভাযাত্রার উদ্ভোধন করেন । এসময় পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরীফ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট ও নোয়াখালী প্রেসক্লাবের আহবায়ক কাজী মাহবুবে আলম, জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা ড.মাহে আলম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড.শিহাব উদ্দিন শাহিন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মিয়া মোঃ শাহজাহান, সহ-সভাপতি আবু তাহের, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সামছুদ্দিন জেহান, শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু ,সরকারী ও বেসরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারী, স্কুল কলেজ ও মাদ্রসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী , বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কুতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বৃন্দ সহ সকল স্তরের জনগন উপস্থিত ছিলেন ।

পরে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এসে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে শিল্পকলা একাডেমিতে জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বক্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষনকে ইউনেস্কো কর্তৃক বিশ্ব প্রামাণ্য হিসেবে নিবন্ধন করার জন্য ইউনেস্কোর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

আনন্দ শোভাযাত্রায় প্রায় ২০ হাজার লোকের স্বতস্ফুর্ত উপস্থিতি ছিল। এছাড়াও জেলার ৯টি উপজেলায় একই ধরনের আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বড় পর্দায় মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র ওরা ১১ জন প্রদর্শন করা হয়।

মোঃ আবদুল্যাহ রানা

নোয়াখালী প্রতিনিধি